বিভাগীয় সংবাদ

ফুটবল খুঁজতে গিয়ে কিশোররা দেখল লাশ পড়ে আছে

জুমবাংলা ডেস্ক: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার গুল্টা বাজার এলাকা থেকে আব্দুল মতিন (৪০) নামের এক মোবাইল সারাই মিস্ত্রির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত আব্দুল মতিন তালম ইউনিয়নের তালম পদ্ম পাড়া গ্রামের মৃত ফজলার হোসেনের ছেলে। তাড়াশ থানা পুলিশ জানায়, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আজ বুধবার গুল্টা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে একদল কিশোর ফুটবল খেলছিল। হঠাৎ বল দূরে গিয়ে পড়লে তা খুঁজতে গিয়ে লাশ দেখতে পায়। পরে তারা থানা পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হয়।

পুলিশের সুরতহাল রিপোর্ট থেকে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মতিনের মাথায় ভারি কিছু দিয়ে আঘাত করে হত্যার পর স্কুলে নিয়ে লাশ রাখা হয়েছে। তার মাথা থেতলানো ও গুরুতর জখমের চিহ্ন রয়েছে। নিহতের স্ত্রী শেফালী খাতুন জানান, তার স্বামী আব্দুল মতিনের গুল্টা বাজারে একটি ইলেক্ট্রনিক্সের দোকান রয়েছে। সেখানে রাতেও কাজ করেন তিনি। মঙ্গলবার রাতে দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ হন। তার দাবি, স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফজলে আশিক বলেছেন, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ২৫০ শয্যার হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button